মায়ের ক’বরে শা’য়িত হচ্ছেন খোকা

সদ্য প্রয়াত বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা শা’য়িত হচ্ছেন তার মায়ের ক’বরেই।

বুধবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে গোপীবাগ আর কে মিশন রোডে সাদেক হোসেন খোকার বাস ভবনে তার ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সাদেক হোসেন খোকা তার বড় ছেলে ইশরাক হোসেনকে বলে গেছেন জুরাইন ক’বরস্থানে তার বাবা মায়ের কবরের পাশে যেন তাকে দা’ফন করা হয়। এ বিষয়ে সাদেক হোসেন খোকার

ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল বলেন, প্রথমে সিদ্ধান্ত ছিল বাবা মায়ের ক’বরের পাশেই সা’য়িত করা হবে, কিন্তু বাবা মায়ের ক’বরের পাশে কোন খালি জায়গা নেই।

আর জায়গা পাওয়া গেছে অনেক দূরে তাই পারিবারিক ভাবে সিদ্ধান্ত হয়েছে মায়ের ক’বরেই তাকে শা’য়িত করা হবে। এছাড়া খোকা ভাইয়ের ইচ্ছে ছিল মা’য়ের ক’বরেই যেন তার ক’রব হয়।

জুরাইন ক’বরস্থানের নিরাপত্তা দায়িত্বে থাকা আলতাফ হোসেন সরদার জানান, সাদেক হোসেন খোকার

পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ওনার মায়ের ক’বরেই তাকে দা’ফন করা হবে। আগামীকাল সকাল ৭টার থেকে আমরা ক’বর খননের কাজ শুরু করব।

জুরাইন ক’বরস্থানের দুই নম্বর গেইট দিয়ে ঢুকতে তিন চারটি ক’বরের পরেই চোখে পরবে খোকার মায়ের ক’বর। এর পূর্ব দক্ষিণে প্রায় ২০ ফুট দূরত্বে রয়েছে তার বাবার কবর।

খোকার ম’রদেহ নিয়ে দেশের পথে রওয়ানা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। ম’রদেহ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সকাল ৮টা ১০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছার কথা রয়েছে।

সাদেক হোসেন খোকার লাশবাহী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে ২০২ নম্বর ফ্লাইটটি নিউইয়র্ক সময় মঙ্গলবার রাত ১১.২০ মিনিটে(বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ১০.২০ মিনিটে) দুবাইর

পথে রওয়ানা হয়েছে। সেখান থেকে ইকে ৫৮২ নম্বর ফ্লাইটে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা দশ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে।

মরদেহের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক ডেপুটি মেয়র আব্দুস সালাম, খোকার স্ত্রী ইসমাত হোসেন, বড় ছেলে ইসরাক হোসেন, ছোট ছেলে ইসফাক হোসেন, মেয়ে সারিকা সাদেকসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা রয়েছেন।

দীর্ঘদিন নিউইয়র্কে চিকিৎসাধীন থাকার পর সোমবার (৪ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে সেখানকার একটি হাসপাতালে মা’রা যান খোকা।

বৃহস্পতিবার (০৭ নভেম্বর) লা’শ দেশে পৌঁছার পর বেলা ১১টায় জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় নামাজে জা’নাজা অনুষ্ঠিত হবে। একইদিন মরহুমের লা’শ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ১২ থেকে ১টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হবে।

বাদ যোহর নয়াপল্টন দলীয় কার্যালয়ের সামনে নামাজে জা’নাজা অনুষ্ঠিত হবে। বিকাল ৩টায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে মরহুমের লা’শ নিয়ে যাওয়া হবে এবং সেখানে নামাজে জা’নাজা

অনুষ্ঠিত হবে। সেখান থেকে গোপীবাগে মরহুমের নিজস্ব বাসভবনে লা’শ নিয়ে যাওয়া হবে। বাদ আছর মরহুমের বাসভবন

থেকে লা’শ ধুপখোলা মাঠে নিয়ে যাওয়া হবে এবং সেখানে শেষ নামাজে জা’নাজা অনুষ্ঠিত হবে। জা’নাজা শেষে জুরাইন কবরস্থানের তার মায়ের ক’বরের দা’ফন করা হবে।