রক্ত দিয়ে সিঁদুর প্রেমিকের, এই প্রেম হার মানালো সিনেমাকেও!

0
29

এ যেন বাংলা সিনেমার নাটকীয় দৃশ্যকেও হার মানায়। প্রেমিকার বাবার মার খেয়ে হাসপাতালে আহত প্রেমিক। বাড়ি থেকে পালিয়ে প্রেমিককে দেখতে ছুটলেন প্রেমিকা। হাসপাতালে নিজের হাত কেটে প্রেমিকার সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দিলেন আহত প্রেমিক। এই সিনেমাটিক ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে।

বনগাঁর শক্তিগড় এলাকার ছেলে বলরাম নাগ(২১)। প্রেমে পড়েছেন একই এলাকার শিউলি বিশ্বাসের(২০)। তারা বনগাঁ দীনবন্ধু মহাবিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষে পড়ছেন। কিন্তু এই সম্পর্ক মেনে নেয়নি শিউলির পরিবার। দুই পরিবার আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি মেটানোর চেস্টাও করে বহুবার। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি।

সোমবার শিউলির অনুপস্থিতিতে বলরামকে বাড়িতে ডাকেন তার বাবা। শিউলির জীবন থেকে বলরামকে সরে যেতে বলেন পেশায় শিক্ষক প্রদীপ বিশ্বাস। এতে রাজি হয়নি বলরাম। তখন শিউলির কয়েকজন আত্মীয় ও প্রদীপবাবু মিলে তাকে প্রচণ্ড মারধোর করেন। মাথায় আঘাত নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন বলরাম।

এদিকে বাড়িতে এসে প্রেমিককে মারধরের খবর জানতে পেরে লুকিয়ে বনগাঁ হাসপাতালে বলরামকে দেখতে ছোটেন শিউলি। সেখানেই শিউলি তার বাবা ও আত্মীয়স্বজনের কৃতকর্মের জন্য বলরামের কাছে ক্ষমা চান। আহত বলরাম কালক্ষেপ না করে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। হাসপাতালের বেডে শুয়ে নিজের হাতের আঙুল কেটে রক্ত দিয়ে শিউলিকে সিঁদুর পরিয়ে দেন প্রেমিক বলরাম। সেই রাতেই তারা হাসপাতাল থেকে ছুটি নিয়ে স্থানীয় মন্দিরে সামাজিক ভাবে বিয়ে করেন।