ব্রেকিংঃ– এবার ১৪ জন আরোহীসহ বিমান উধাও…!

0
86

সোমবার সিরিয়ায় দিনের শেষ দিকে যখন ইসরাইলি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চলছে, তখন ভূমধ্যসাগরের ওপর দিয়ে ১৪ আরোহীসহ একটি রুশ সামরিক বিমান রাডারের পর্দা থেকে অদৃশ্য হয়ে গেছে।

মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সিরীয় উপকূল থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে ভূমধ্যসাগরের ওপরে রুশ বিমানটির সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

উপকূলীয় শহর লাতাকিয়ার স্থানীয় সময় সোমবার রাত প্রায় ১১টার দিকে বিমানটি নিখোঁজ হয়। হিমেইমিম বিমানবন্দরে ফেরার সময় এমন ঘটনা ঘটেছে। ঘাঁটির কাছাকাছি থাকা অবস্থায়ই বিমানটি নিখোঁজ হয়।

রুশ সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, বিমানটির আরোহীদের ভাগ্য এখনও জানা যায়নি। তবে অনুসন্ধান চলছে।

রাশিয়ার নিখোঁজ বিমানটি ইলেকট্রনিক নজরদারির জন্য ব্যবহৃত একটি আইএল-২০ টার্বো-প্রপ বিমান ছিল।

মস্কো থেকে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিমানটি লাতাকিয়া প্রদেশে অবস্থিত রাশিয়ার হিমেইমিম বিমানঘাঁটিতে ফেরার সময় রাডারের দৃশ্যপট থেকে উধাও হয়ে যায়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতির বরাতে রাশিয়ার বার্তা সংস্থা তাস জানিয়েছে, বিমানটি তখন সিরিয়ার উপকূল থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে ভূমধ্যসাগরের ওপরে ছিল।

তাস জানায়, চারটি ইসরাইলি এফ-১৬ জঙ্গিবিমান লাতাকিয়াপ্রদেশে সিরিয়ার স্থাপনাগুলোতে হামলা চালানোর সময় ফ্লাইট কন্ট্রোল রাডার থেকে আইএল-২০ বিমানটির চিহ্ন অদৃশ্য হয়ে যায়। একই সময় রাশিয়ার এয়ার কন্ট্রোল রাডার সিস্টেম ওই এলাকায় অবস্থানরত ফ্রান্সের ফ্রিগেট উভার্নিয়া থেকে ছোড়া রকেট শনাক্ত করে।

ওই সময় লাতাকিয়াতে শত্রু ক্ষেপণাস্ত্রের হামলা হলে সিরিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনী তা প্রতিরোধ করার চেষ্টা করে বলে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এক মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, অসাবধানতাবশত সিরিয়ার বিমান বিধ্বংসী আর্টিলারি বাহিনীর গুলিতে রুশ বিমানটি ভূপাতিত হয়েছে বলে ধারণা ওয়াশিংটনের।