নাইটদের স্পিন বিষে নীল হয়ে গেল গম্ভীরের দল

ঘরের ছেলে ঘরে ফিরে গেছেন। কলকাতা ছেড়ে নিজ শহর দিল্লির অধীনায়ক হয়েছেন। গৌতম গম্ভীর নিয়ে কিই বা বলার থাকতে পারে। কিন্তু নাইটদের মনে ভয় ছিল। আগের ম্যাচে ইডেন গার্ডেনে সাকিব যে দারুণ অলরাউন্ডার পারফর্মে নাইটদের হারের স্বাদ দিয়ে গেছে।
figure>






<

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

figure>






সাত বছর কলকাতায় খেলে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসে যাওয়া গম্ভীর তা পারলেন না। বরং পুরনো বাড়ি ফিরে নাইটদের স্পিন বিষে নীল হয়ে গেছে গম্ভীরের দল। হেরেছে ৭১ রানের বিশাল ব্যবধানে।
figure>






figure>






প্রথমে ব্যাট করে গম্ভীরের দিল্লির বিপক্ষে কলকাতা পুরোপুরি ২০০ রান করে। এই রান টপকে জিততে হলে ডেয়ারডেভিলসদের নামের মতোই কিছু করতে হতো। দুঃসাহস দেখিয়ে কঠিন কাজটা করে দেখাতে হতো তাদের। কিন্তু শুরু থেকেই হুড়মুড় করে উইকেট হারিয়ে বড় ব্যবধানে হেরেছে গম্ভীরের দল।
figure>






figure>






বড় রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ফিরে যান মুম্বাইয়ের বিপক্ষে দারুণ খেলা দিল্লির ওপেনার জেসন রয় (১)। এরপর শ্রেয়াস আইয়ার ৪ রানে ও ৮ রান গম্ভীর ফিরলে বিপদে পড়ে যায় ডেয়ারডেভিলসরা। শুরুর ৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৪ রান তোলা দলকে যা একটু আশা দিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও রিশভ পান্তে।
figure>






figure>






কিন্তু কুলদীপ যাদবের শিকার হয়ে দু’জনেই ফিরে যান। আউট হওয়ার আগে ম্যাক্সওয়েল দিল্লির হয়ে ২২ বলে ৪৭ রানের একটি কালবৈশাখী ঝড় দেখায় কলকাতাকে। এছাড়া ২৬ বলে ৪৩ রান করে ফেরেন পান্তে। বাকিদের আর কেউ রান পায়নি। কলকাতার হয়ে সুনীল নারাইন ৩ টি, কুলদীপ যাদব ৩ টি এবং চাওলা একটি উইকেট নেন। সবমিলিয়ে এই তিন স্পিনার নেন ৭ উইকেট। দিল্লির ইনিংসও শেস হয় ১৪.২ ওভারে ১২৯ রানে।
figure>






ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

figure>






এবারের আইপিএলের জানা কথা টস জিতে ফিল্ডিং নেওয়া। দিল্লি অধিনায়কও তাই করলেন। কিন্তু কাজ হলো না। নিতীশ রানা আর আন্দ্রে রাসেলের ঝড়ো স্কোরবোর্ডে ২০০ রান জমা করে কলকাতা। রানা খেলেন ৩৫ বলে ৫৯ রানের ইনিংস। আর রাসেলে দেখিয়েছেন ১২ বলে ৪১ রানের তান্ডব। বাউন্ডারি বলতে ৬টি ছক্কা। কোন চারের শট নেই। স্ট্রাইক রেট ৩৪১.৬৬!
figure>