ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশের সেরা পাঁচ ক্রিকেটার

0
60

আগামীকাল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আগামীকাল দুপুর একটায় মাঠে নামবে টাইগাররা। আর এই ম্যাচেই ক্রিকেট ইতিহাসে বিরলতম এক রেকর্ড স্পর্শ করতে যাচ্ছেন বংলাদেশের ক্রিকেটের পঞ্চ পাণ্ডব হিসাবে পরিচিত সাকিব, তামিম, মুশফিক, রিয়াদ ও মাশরাফি।

সাকিব আল হাসান বাংলাদেশের ইতিহাসে সেরা অলরাউন্ডার। সুপারস্টার এই তারকা যেনো প্রতিটি বছরই নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন। তামিম ইকবাল বাংলাদেশের সেরা ওপেনার এবং সবচেয়ে বেমি রানের মালিকও তিনি। বিদেশের মাটিতে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরিয়ান খেলোয়ার মুশফিক এবং লোয়ার অর্ডারে ব্যাটিং নির্ভরতার প্রতীক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

পঞ্চ পাণ্ডব মধ্যে সবচেয়ে বয়স্ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ২০১৫ সালের পর থেকে বয়স মাশরাফিই যেন সবচেয়ে তরুণ হয়ে আছেন বাংলাদেশ দলে। ইনজুরিতে আক্রান্ত থেকেও দলকে টেনে নেয়ার অনন্য নজির স্থাপন করেছেন এই পেসার।

২০০৭ সালে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অভিষেকের পর এই পাঁচ তারকা নিয়মিতই খেলছেন একসাথে। তাদের হাত ধরেই বাংলাদেশ উঠে এসেছে আজকের অবস্থানে। ২০১৫ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল, ২০১৭ চ্যাম্পিয়নশিপে সেমিফাইনাল, এশিয়া কাপে টানা ফাইনাল খেলার কৃতিত্ব, বড় দল গুলোকে নিয়মিতই হারানোর কাজগুলো করছেন এই পাঁচ তারকাই।

যখন তারা একসাথে খেলা শুরু করে তখন বাংলাদেশ জিতা শুরু করে জিম্বাবুয়ে, কেনিয়ার মতো দল গুলোর বিপক্ষে। এরপর ধীরে ধীরে তাদের পারফর্মেন্স উন্নতি হতে থাকে এবং এখন বিশ্বে পরাশক্তিদের একটি। ২০০৬ সাল পর্যন্ত ১৪৭ ম্যাচের মধ্যে ১১৪টিই হেরেছিল।

২০০৮ সালে জেমি সিডন্সের সময়কাল থেকে এই পাঁচ তারকার আধিপত্য শুরু। ২০১০ সালে অনেকটা ওয়ান ম্যান শো এর মত করেই নিউজিল্যান্ডকে ৪-০ ব্যবধানে হোয়াইট ওয়াশ করে বাংলাদেশ।

২০১২ সালে এশিয়া কাপে ফাইনালে অল্পের জন্য হেরে যায় বাংলাদেশ। এর আগে বাংলাদেশ ওয়েস্টইন্ডিজকে হারিয়েছিল ৩-২ ব্যবধানে। এরপর এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের যত সাফল্যের নেপথ্যে রয়েছে এই পাঁচ তারকা। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এই পাঁচ তারকার ম্যাচের সেঞ্চুরি হবে। বুঝলেন না তো? তামিম, রিয়াদ, মাশরাফি, মুশফিক, সাকিব একসাথে একই ম্যাচে খেলেছে এমন শততম ম্যাচ হতে যাচ্ছে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচটি।