গ্লাভস কেটে ভেতর হাত ঢুকিয়ে তামিমকে তৈরি করে মাঠে নামিয়েছিলেন যিনি

0
125

এশিয়া কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে লঙ্কানদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওভারে চোট পায় তামিম। এরপর হাসপাতাল পর্যন্তও যেতে হয় এই ড্যাসিং ব্যাটসম্যানকে । কিন্তু দলের দুঃসময়ে ব্যান্ডেজ হাতেই নেমে পড়েন তামিম । মাঠে নেমে করেন এক হাতে ব্যাটিং। দুঃসাহসী এই সিদ্ধান্তে পুরো বিশ্ব প্রসংসায় মুখর বাংলাদেশের এই ব্যাটিং স্তম্ভ।

তবে কিভাবে এল এই সিদ্ধান্ত। জানা গেছে বিশেষ পরিস্থিতিতে তামিমকে ব্যাটিংয়ে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি । যদিও তিনি এ ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলনে কিছুই বলতে চাননি। তবে অষ্টম উইকেট পড়ে যাওয়ার পর সিদ্ধান্ত হয় আরেক উইকেট পড়লে, যদি মুশফিক স্ট্রাইকে থাকেন তবেই ব্যাট হাতে মাঠে নামবেন তামিম।

৪৭তম ওভারে মোস্তাফিজুর রহমান রান আউটে কাটা পড়ার সময় নন-স্ট্রাইকে ছিলেন মুশফিক। ওভার শেষ হতে বাকি ছিল আরও এক বল। অধিনায়কের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তখন আর মাঠে নামার কথা নয় তামিমের। অর্থাৎ ২২৯ রানেই থেমে যাওয়ার কথা বাংলাদেশের। এরপরই সাহসী সিদ্ধান্ত তামিমের। তামিম তখন নিজ থেকেই বলেন, ‘আমি গিয়ে এক বল খেলব, আমি যাব।’

তামিমের হাতের একাধিক জায়গায় ফ্র্যাকচার দেখা দিয়েছে। দুই আঙুলে ব্যান্ডেজ থাকায় হাতে গ্লাভস পরাও সম্ভব হচ্ছিল না। তামিমের সিদ্ধান্তের পর অধিনায়ক নিজে গ্লাভস কেটে গ্লাভসের ভেতর হাত ঢুকিয়ে দেন। বাকিটা ইতিহাস।

মোস্তাফিজ আউট হতেই গ্লাভস কাটলেন ব্যান্ডেজ বাঁধা হাত বের করে রাখার সুবিধায়। তারপর নামলেন মাঠে, ততক্ষণে সবার চোয়াল বড় হয়ে গেছে। তামিমের এই সাহসিকতা দেখে ক্রিকইনফোর ধারাভাষ্যকার বলেছেন, ‘অবিশ্বাস্য দৃশ্য! ১১ নম্বর ব্যাটসম্যান হিসেবে তামিম ব্যাটিংয়ে নামছেন। ক্রিকেট ইতিহাসে বিরল এক দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’

নেমে এক হাতে লাকমালের শেষ বলটা কোনমতে ঠেকান তামিম। তার এক হাতে ব্যাট করার যে ছবি এখন ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পরে আর স্ট্রাইকে যেতে হয়নি। মিলিয়ন ডলার দামি ৩২ রান একাই তুলেছেন মুশফিক।

বাংলাদেশের সংখ্যার হিসাবে পায় ২৬১ রানের পূঁজি। কিন্তু ওই মোড় ঘুরানো সিদ্ধান্তে পেয়ে যায় ম্যাচের সবচেয়ে দামি মোমেন্টাম। তামিমকে নামতে দেখে হতভম্ব লঙ্কান অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসও স্বীকার করে নিলেন তা।

তবে এখনো তামিমের ইনজুরির ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কিছু জানায়নি বিসিবি । তবে সূত্র থেকে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী এখনো দু-একদিন অপেক্ষা করা হবে সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপারে। আর সিদ্ধান্ত পক্ষে আসলে আবারো ব্যাটিংয়ে নামবেন দুঃসাহসী এই তারকা। নাহলে হয়ত ৪ বলেই শেষ হবে তার এশিয়া কাপ।