খোলাবাজারে এইচআইভি পরীক্ষার কিট

যুক্তরাজ্যের খোলাবাজারে এলো এইচআইভি সেলফ-টেস্টিং কিট। বায়োশিওর নামের এই কিটটি নাগরিকদের দোরগোড়ায় এনেছে সুপারড্রাগ নামের একটি প্রতিষ্ঠান; যদিও এর আগে অনলাইনে বায়োশিওর পাওয়া যেত।







সুপারড্রাগ বলছে, খোলাবাজারে এখন বায়োশিওর পাওয়া যাচ্ছে। যেটি দিয়ে মাত্র ১৫ মিনিটে এইচআইভি নির্ণয় করা যায়। দেশব্যাপী সুপারড্রাগের ২০০ স্টোরে এ কিট বিক্রয় করা হচ্ছে। এর মূল্য ৩৪ পাউন্ড। এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে বিভিন্ন এইচআইভি চ্যারিটি।







মারাত্মক মরণব্যাধি এইচআইভি পরীক্ষায় ডায়াগনসিসের দীর্ঘসূত্র এড়াতে এই কিট উদ্ভাবন করেন বিজ্ঞানীরা। এর মাধ্যমে ঘরে বসে নিজে নিজেই রক্ত পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়া যায় এইচআইভি আক্রান্ত কি না। এটি অনেকটা সেলফ প্রেগনেন্সি টেস্টের মতোই। ছোট একটি ড্রপ টিউবে একটি ল্যানসেট বা সুই দিয়ে আঙুলের মাথা ফুটো করে রক্ত নিতে হয়। যদি ড্রপার টিউবটিতে রক্তের বর্ণের দিক থেকে দুটি সারি দেখা যায়, তবে তা পজিটিভ। প্রাথমিকভাবে দ্রুত নিশ্চিত হওয়ার জন্যই এই সেলফ-টেস্ট কিটকে ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। কারণ যত দ্রুত জানা যাবে তত দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব হয়। পজিটিভ ধরা পড়লে পরবর্তী আরো পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য রোগীকে অবশ্যই চিকিৎসক ও হাসপাতালে যেতে হবে।







গত মে মাসে টেরেন্স হিগিন্স ট্রাস্ট উচ্চঝুঁকিসম্পন্ন ব্যক্তিদের মধ্যে সেলফ-টেস্টিং কিট বিনা মূল্যে বিতরণ শুরু করে। ছয় মাস ধরে এ কর্মসূচি চলবে। এই চ্যারিটির ধারণা, যুক্তরাজ্যে সাড়ে ১০ হাজার মানুষ আছে, যারা জানে না যে তারা এইচআইভি নিয়ে বেঁচে আছে।