‘মুসলমান বিয়ে করেছেন কেন?’

ঘটনার সূত্রপাত জম্মু কাশ্মীরের কাঠুয়াতে আট বছরের মেয়েকে ধর্ষণের প্রতিবাদকে কেন্দ্র করে। কাঠুয়ায় শিশু ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে এক বিশেষ ক্যাম্পেইন করছেন তারকারা।







ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন







তারা বুকের সামনে একটি সাদা কাগজে লেখা নিয়ে দাঁড়ানো ছবি পোস্ট করছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এতে লেখা, ‘আমি ভারতীয় হয়ে লজ্জিত’।

একইভাবে প্রতিবাদ করেন কারিনাও। আর সেই ছবি স্বরা ভাস্কর টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করতেই একের পর এক সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হচ্ছেন কারিনা। ওই টুইটার পোস্টে জানতে চাওয়া হয়, হিন্দু হয়ে একজন মুসলমানকে কেন বিয়ে করেছেন?







ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন







পোস্টটির মন্তব্যের ঘরে কারিনার উদ্দেশে এক ব্যক্তি লিখেন, ‘হিন্দু হয়ে একজন মুসলমানকে বিয়ে করায় লজ্জা হওয়া উচিত। আবার সন্তানও হয়েছে, যার নাম রাখা হয়েছে এক নৃশংস মুসলিমের নামে- তৈমুর।’

কারিনাকে এভাবে আক্রমণ করায় এগিয়ে আসেন স্বরা ভাস্কর। ওই মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে স্বরা লিখেন, ‘আপনার তো বেঁচে থাকার জন্যই লজ্জা হওয়া উচিত। ঈশ্বর আপনাকে মস্তিষ্ক দিয়েছে ঘৃণা করার জন্য আর মুখ দিয়েছে কদর্য কথা বলার জন্য। আপনি ভারতীয় ও হিন্দু হওয়ার জন্য লজ্জিত হওয়া উচিত।’













উল্লেখ্য, পাঁচ বছর প্রেমের পর ২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর গাঁটছড়া বাঁধেন পতৌদির নবাব সাইফ আলী খান এবং ‘হিরোইন’ তারকা কারিনা কাপুর খান। এরপর তাঁদের জীবনে ছোট নবাব তৈমুর আসে।