ডিভোর্সের পাঁচ বছর পর শ্বশুরবাড়িতে প্রবাসীর মরদেহ

0
228

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার এবদারপুর গ্রামে শনিবার সাবেক শ্বশুরের বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় ইকবাল হোসেন (৩২) নামে এক প্রবাসীর মরদেহ। বাড়ির উঠানের গাছ থেকে ঝুলন্ত মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। তবে এটি আত্মহত্যা না হত্যাকাণ্ড সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

নিহত ইকবাল হোসেন কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার বাতাবাড়িয়া গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, ২০০৮ সালে একই জেলার বুড়িচং উপজেলার এবদারপুর গ্রামের মৃত মতিন মিয়ার মেয়ে রোকসানা আক্তারের সঙ্গে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় ইকবালের। তবে পারিবারিক বিভিন্ন বিরোধের জেরে ২০১৩ সালে তাদের তালাক হয়ে যায়। বর্তমানে রোকসানা দ্বিতীয় বিয়ে করে সংসার করছেন।

কিন্তু নিহতের পরিবারের দাবি আলাদা হয়ে গলেও রোকসানা ও ইকবালের মধ্যে ফোনে যোগাযোগ ছিলো। ইকবাল বিদেশ থেকে ফিরে আর নিজের বাড়িতে যায়নি। পরিবারের অজান্তে দেশে ফিরে ঢাকায় চাকরি করতেন তিনি।

হঠাৎ শনিবার সকালে ৪ বছর আগে তালাক দেয়া স্ত্রী রোকসানার বাবার বাড়ির উঠানের বরই গাছে ইকবালের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায় রোকসানার পরিবার। পরে তারা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে দেবপুড় ফাঁড়ী ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আবু ইউসুফ-উজ্জামান বলেন, এটি আত্মহত্যা নাকি হত্যাকাণ্ড তা এখনই বলা সম্ভব নয়। পোস্টমর্টেমের রিপোর্ট হাতে পেলে জানা যাবে।