‘শাকিবের সাথে যখন রাতে ফোনে কথা হত, রোদেলা তখন পাশেই থাকতো’

0
103

চলচ্চিত্র অভিনেতা শাকিব খানের নতুন চলচ্চিত্র ‘শাহেনশাহ’। ছবিটি পরিচালনা করছেন শামীম আহমেদ রনি। এই ছবির মাধ্যমেই বড় পর্দায় পা রাখতে যাচ্ছেন রোদেলা জান্নাত। তিনি সিনেমাটিতে দ্বিতীয় নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করবেন। রোদেলা প্রথম ছবিতেই নায়ক হিসেবে পেয়েছেন শাকিব খানকে। ছবিতে আরো অভিনয় করছেন নুসরাত ফারিয়া।

এদিকে শামীম আহমেদ রনির স্ত্রী তমা খান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে শাহেনশাহ ছবির নায়িকা রোদেলা জান্নাত, পরিচালক শামীম আহমেদ রনি এবং শাকিব খানের বিষয়ে কিছু অভিযোগ তুলে ধরেছেন।

তমা খানের ফেইসবুক পোস্টে যা লেখা আছে:-

‘শাহেনশাহ’ নামের একটি সিনেমা নির্মাণ হচ্ছে। সিনেমাটি নির্মাণ করছেন আমার দূর- সর্ম্পকের প্রেমিক রনি। কথা ছিল শুধুমাত্র আমি হ্যা বললে শাকিব খান রনিকে সিনেমাটা দিবে। হ্যা বলেছিও….সিনেমাও পেয়েছে।

যাইহোক, দূর- সর্ম্পকের প্রেমিক বলার কারণ, যাকে নিয়ে আমাদের সর্ম্পকের মধ্যে টানাপোড়ন শুরু হয় সেই নারীটিই এই সিনেমার সেকেন্ড নায়িকা।

যদিও রনি বলেছে রোদেলা জান্নাতকে সে সেকেন্ড নায়িকা বানায়নি শাকিব খানই বানিয়েছে। এটা শোনার পর আমি শাকিব খানের বাসায় চলে যাওয়ায় তিনি ও বলেছেন ‘আমি ওকে নিয়েছি। তুই আগে বলতি বাদ দিয়ে দিতাম। সেকেন্ড নায়িকাই তো।’ জানি না সত্যি নাকি মিথ্যা বলেছে।

সে আমাকে শুটিং এর শুরু থেকে শেষ অবধি সেটে থাকতে বলেছে। আমি বলেছি কাউকে পাহারা দেওয়ার জন্য আমি সেটে থাকবো না ভাইয়া। আমি তো সাক্ষী গত দুইবছর রোদেলা- রনি চুটিয়ে প্রেম করে, আজ সে রোদেলাকে ফিল্মে ঢুকিয়েছে।

মাঝে রনি আমার সাথে অনেক দেখা করতে চেয়েছে, ক্ষমা চেয়ে নতুন করে সংসার শুরু করতে চেয়েছে। আমি চান্সও দিয়েছিলাম। কিন্তু আমার কাছে আসলে রোদেলা রনিকে অসংখ্যবার ফোন দিত, কেন আমার কাছে এসেছে বলে ঝগড়া করতো। এইসমস্ত বিশ্রী কারণে আমি ই রনির আসা বন্ধ করিয়েছি। আমি চাই ও না আমরা আর এক হই।

কিছুদিন আগে রোদেলার মুখে শুনলাম অন্য কথা। রোদেলা জান্নাতের ভাষ্য শাকিব খান নাকি তার প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন। তার জন্য পাগল হয়ে গেছেন। আর ‘শাহেনশাহ’ সিনেমার নির্মাতা তো তার জন্য আগে থেকেই পাগল। তিনি কোনকুলে যাবেন বুঝতে পারছেন না আর জিনিসটা যে তিনি খুব উপভোগ করছেন তার কথা শুনেই বুঝতে পারছিলাম।

যেহেতু সুপারস্টার এর ক্ষমতা অনেক বেশী তাই তিনি এখন সুপারস্টার এর গার্লফ্রেন্ড হয়েই আছেন আর রনি এখন তার অনলি ফ্রেন্ড। অবাক হলাম! আমার চোখের সামনে রনির সাথে ঘুরে-ফিরে, মজা -মাস্তি করে, রনির বাসায় দিনের পর দিন যাওয়া- আসা করে, রনির বাড়ি মানিকগঞ্জ পর্যন্ত যেয়ে, ইন্ডিয়া যেয়ে গার্লফ্রেন্ড হয়ে ফূর্তি করে এসে এখন শাকিব খান তার কিভাবে বয়ফ্রেন্ড হলো? আর এসব কিন্তু মিডিয়ার সবাই জানে। নাহলে এমনি এমনি ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে আমি তাদেরকে জেলের ভাত খাওয়ানোর হুমকি দিয়েছিলাম?
খাওয়াইনি শেষমেষ অবশ্য। ক্ষমা করেছি!

আসলে এই সমস্ত অল্প কিছু নায়িকা নামধারী মডেলদের জন্য অনেক মেধাবী অভিনেত্রীদের মান সম্মান নষ্ট হয়… আমি আসলে এত কিছু লিখতাম না!

গতকালকে হঠাৎ ওই সেকেন্ড নায়িকার একটা পোস্ট দেখে অবাক হয়েছি।

সম্প্রতি শাকিব খান বাংলালিংক এর একটা টিভিসি করেছেন। ওখানে আদনান আল রাজীব ভাই তার একটা গেট আপ দিয়েছেন। অথচ রোদেলা জান্নাত দাবী করেছেন শাকিব খান এর ওই গেটাপ নাকি তার এক্স বয়ফ্রেন্ড তার বর্তমান বয়ফ্রেন্ডকে দিয়েছেন। তিনি এক্সকে ধন্যবাদ ও দিয়েছেন।

দেখে খুব হেসেছি। বেচারী দুই কুলই রাখতে চান। মাঝে মাঝে নবাগতার জন্য মায়াও হয়। আমাদের পুরুষতান্ত্রিক সমাজে অনেক কিছুই মাঝেমধ্যে অন্যদের মন রক্ষার্থে করতে হয়। কিছুই করার থাকে না। আর মিডিয়া হলে তো কথাই নেই। (নায়িকা জানেই না এটা বিজ্ঞাপনের গেটাপ।)

তবে কারো মিথ্যাচার কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়! শাকিব খান এর এই লুক যে ‘শাহেনশাহ’ সিনেমার না আর রোদেলা জান্নাতের ভাষ্যমতে তিনি যে এখন শাকিব খানের গার্লফ্রেন্ড তার কিছু স্ক্রিণশট নিচে দিচ্ছি। যদিও আমার কোনো লাভ নেই। তবুও মাঝেমাঝে কিছু কথা ক্লিয়ার করা ভাল।

বাই দি ওয়ে, রাতে আমার সাথে যখন শাকিব খানের ফোনে কথা হত ২/৩ টায় (আমার রনির সংসার বিষয়ে) নায়িকা নাকি পাশেই থাকতো… শুটিং শুরু হওয়ার আগেই!!?? কথাটা যে মোটেও গর্বের না নায়িকাটি যদি বুঝতো!!!

(নির্মাতা শামীম আহমেদ রনির স্ত্রী তমা খানের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে সংগৃহীত)