Sunday , 20 May 2018

এই সমস্ত লক্ষন থাকলে মেয়েরা বিয়ের পর স্বামী ও তার পরিবারকে সবচেয়ে বেশি সুখি করতে পারে…

মেয়েরা বিয়ের পর স্বামী- যখন কোন বাড়িতে মেয়ের জন্ম হয় তখন সবাই বলে কংগ্রেজুলেশন লক্ষ্মী এসেছে। মেয়েরা তার ভাগ্য নিয়ে জন্ম নেয়। শুধু নিজের বাবার বাড়িতে নয় বরং শ্বশুর বাড়িতে গেলেও সবাই বলে যে লক্ষ্মী এসেছে।







এমনিতেই মেয়েরা নিজের বাবা-মা এবং শ্বশুর বাড়িতে লক্ষ্মী রূপে বিরাজ করে। কিন্তু সামুদ্রিক শাস্ত্র অনুযায়ী একটা ভাগ্যবতী মেয়ের কিছু গুন থাকে। আর সেই ভাগ্যবতী মেয়ের গুণগুলি তার অঙ্গ প্রকাশ করে।







সামুদ্রিক শাস্ত্রতে বিভিন্ন চিহ্ন, সংকেত, লক্ষণের কথা বলা হয়েছে। যেমন তিল, হাত পায়ের ধরন ইত্যাদি। আপনিও দেখুন আপনার শরীরে এই সমস্ত চিহ্ন আছে কিনা বা আপনার প্রেমিকার এই লক্ষণগুলো আছে কিনা।







যাতে আপনি বুঝতে পারবেন যে তারা সত্যিই ভাগ্যবতী কিনা। জানার জন্য সম্পূর্ণ লেখাটি আপনাদের পড়তে হবে।







চোখ –

হরিণের মতো চোখ যে সমস্ত মেয়েদের থাকে তারা প্রেম-ভালোবাসা তথা সুখ-সমৃদ্ধিতে ভরপুর হয়। এছাড়া যে সমস্ত মেয়েদের চোখের সাদা অংশের শেষে লাল ভাব দেখা যায় তারা পরিবারের জন্য খুবই ভাগ্যবতী হয়ে থাকে।







কপালে তিল –

যে সমস্ত মহিলার কপালে তিল থাকে তারা খুবই ভাগ্যবতী এবং ধনী হয়।







বাঁ গালে তিল –

যে সমস্ত মহিলাদের বাঁ গালে তিল থাকে তারা খুবই খাদ্য রসিক হয় এবং তারা রান্না বান্নাতেও খুব পটু হয়।







নাকে তিল –

যে সমস্ত মহিলাদের নাকের ডগায় তিল বা আঁচিল থাকে তারা খুবই ভাগ্যবতী হয়। এই সমস্ত মহিলারাদের ভাগ্য খুবই ভাল হয়।







শরীরে তিল –

যে সমস্ত মহিলার শরীরের বাঁদিকে অতিরিক্ত পরিমাণে তিল বা আঁচিল থাকে তারা পরিবারের জন্য খুবই lucky হয়।







গভীর নাভি –

যে সমস্ত মহিলাদের নাভি খুবই গভীর এবং ভেতরের দিক থেকে ওঠানো হয় তারা জীবনে শুধুমাত্র সুখ ভোগ করে।







নাভির আশেপাশে তিল –

সামুদ্রিক শাস্ত্র অনুসারে যে সমস্ত মহিলাদের নাভির আশেপাশে বা নিচে তিল থাকে যে সমস্ত মহিলারা জীবনে খুব সুখ সমৃদ্ধি ভোগ করে থাকেন। জীবনে সুখ-সমৃদ্ধির লক্ষণ।







পা –

যে সমস্ত মহিলাদের পা খুব নরম বিকশিত এবং গোলাপী রঙের হয় যে সমস্ত মহিলারা নিজের স্বামী বা প্রেমিককে সুখ দিতে পারে। এই সমস্ত মহিলারা শারীরিক সম্বন্ধের ব্যাপারে খুবই আগ্রহী হয়।







গোল গোড়ালি –

যে সমস্ত মহিলাদের গোড়ালি গোলাকার ও নরম হয় তারা খুবই সুখ-সমৃদ্ধি করেন এবং নিজের পরিবারকেও সুখে রাখার চেষ্টা করে।







আঙুল –

যে সমস্ত মহিলাদের আঙুল চওড়া এবং লালিমা যুক্ত হয় তারা খুবই ভাগ্যবতী হয়।







ভাঁজ খাওয়া পায়ের তালু –

যে সমস্ত মহিলাদের পায়ের তালু ভাঁজ যুক্ত হয় সে সমস্ত মহিলারা খুবই ভাগ্যবতী হয়ে থাকে এবং তারা জীবনে খুব কমই সময়ে সমস্যার সম্মুখীন হয়।







পায়ের আঙুল –

যে সমস্ত মহিলাদের পায়ের আঙুল এক সমান হয় তার সারা জীবনে সুখময় হয়।







আঙুল যদি জোড়া হয় –

যে সমস্ত মহিলাদের পায়ের আঙুল একে অপরের সাথে যুক্ত থাকে তারা খুবই ধনী হয় এবং কথাবার্তা এবং ব্যবহারেও খুবই কোমল হয়।







এই সমস্ত মহিলাদের রাজযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে –

যে সমস্ত মহিলাদের পায়ের তালুতে শাঁখ, পদ্ম বা চক্র খচিত থাকে সেই সমস্ত মহিলারা ভাগ্যের দিক থেকে খুবই ধনী হন। এই সমস্ত মহিলাদের রাজযোগ প্রাপ্তি হয় এবং এই সমস্ত মহিলা বা তাদের স্বামিরা কোন বড় স্থানে অধিষ্ঠিত হয়।







সবাইকে খুশি রাখে –

সামুদ্রিক শাস্ত্র অনুসারে যে সমস্ত মহিলাদের পায়ের তলায় ত্রিকোণ চিহ্ন অঙ্কিত থাকে সে সমস্ত মেয়েরা খুবই বুদ্ধিমতি হয়। এই সমস্ত মহিলারা খুবই বুঝেশুনে সংসার চালাতে পারে এবং নিজের সংসার কে সুখী রাখতে পারে।