রোজ রাতে নির্দিষ্ট একটি সময়ে ঘুম ভেঙে যায়? জানেন কেন?

একটি সময়ে ঘুম ভেঙে যায়- ঘুম আসে, কিন্তু টানা থাকে না। মাঝ রাতে হঠাৎ করে ঘুম ভেঙে যায়। কোনও কারণ ছাড়াই। আর কিছুতেই আসতে চায় না।







ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন







একটা নির্দিষ্ট সময়েই যেন ঘুমটা এমন বিশ্রীভাবে ভেঙে যায়। এটা কি স্বাভাবিক? না এর নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ আছে! আপনার শরীর কিংবা মনের ভিতরে কোনও রোগ বাসা বাঁধেনি তো?

রাত এগারোটা থেকে একটা- এই সময়ের মধ্যে যদি স্বাভাবিক ভাবে আপনার ঘুম ভেঙে যায় তাহলে তা গলব্লাডারের ক্ষতি হতে পারে। সাধারণত মানসিক ভাবে হতাশ হলে এভাবে ঘুম ভেঙে যায়। এই সময়ের ঘুম ফিরে পেতে হলে ক্ষমা করতে শিখুন। আর অবশ্যই নিজেকে ভালবাসতে জানুন।

রাত একটা থেকে ভোররাত তিনটে- এই সময়ের মধ্যে ঘুম ভাঙা মানে লিভারের অসুখে ভোগা। সাধারণত যাঁরা অল্পেতে রেগে যান এবং নিজেদের রাগের উপর যাঁদের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই তাঁদের এই সময়ে ঘুম ভেঙে যায়। ঘুমোতে যাওয়ার আগে ঠান্ডা জল খাবেন। আর পারলে নিজের আবেগের উপর একটু নিয়ন্ত্রণ করতে শিখুন।







ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন







ভোররাত তিনটে থেকে পাঁচটা- এই সময়টাকে ব্রহ্ম মুহূর্ত বলে। অনেকেই এই সময়ের মধ্যে ওঠার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তবে আচমকা ঘুম ভেঙে গেলে তা ক্ষতিকর। ফুসফুসের পক্ষে খারাপ হতে পারে।

আবার এমন সময় মনে অবসাদ আসার প্রবণতা বেশি থাকে। তাই এই সময়ে উঠলে সবার আগে দীর্ঘ নিঃশ্বাস নিন। ধ্যানের মাধ্যমে মনে আত্মবিশ্বাস আনুন। ভবিষ্যত নিয়ে আশাবাদী হতে শিখুন।

সকাল পাঁচটা থেকে সাতটা- সকালের এই সময়ের ঘুম ভাঙার অর্থ আপনার মনে অনেক দ্বিধা রয়েছে।













গতে বাঁধা জীবন। সেই জীবনেই অভ্যস্ত আপনি। ঘুম ভাঙার পর একটি শরীরচর্চা করুন। প্রয়োজনে ভাল করে প্রাতরাশ সারুন। এতে প্রাতঃকৃত্য ভাল হবে। আর সারা দিন শরীর ও মন দুইই ভাল থাকবে।