অপু ক্ষমা চাইলে সব ভুলে সংসার করতাম: শাকিব

আগামী ২২ ফেব্রুয়ারী ডিভোর্স কার্যকর হয়ে যাচ্ছে আলোচিত জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের। এর আগে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে তাদের দুজনকে রাগ অভিমান দূরে রেখে এক করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু সেখানে শাকিবের পক্ষে কোন লোক উপস্থিত না হওয়ায় ভাঙ্গানো যায়নি তাদের অভিমান। আর সেই না ভাঙ্গাতে পারার কারনে এবার দুই দজনের পথ দুই দিকে যাচ্ছে আনুষ্ঠানিক ভাবেই।

এ নিয়ে শাকিব খান বলেন, সহ্যের একটা সীমা আছে। তার জন্য কি না করেছি। চেয়েছিলাম সুখের ঘর করতে। কিন্তু
সে আমার সন্তানকে নিয়ে চলে গেল টিভিতে লাইভ অনুষ্ঠানে। কি দরকার ছিল? তারপরও আমি আমার সন্তানের মুখের দিকে চেয়ে সব ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করি।

এই ঘটনার পরও আমি তার বাসায় নিয়মিতই যেতাম। যা প্রয়োজন তাই দিয়েছি। এত কিছুর পরও আমাকে নিয়ে তার নেতিবাচক কথা থামেনি। আর এসব কাজের জন্য একবারো সরিও বলেনি। সে শুধু আমাকেই নয়, আমার বাবা-মাকেও অপমান করেছে।

এরপর আবার আবার বাচ্চাকে কাজের মানুষের কাছে দিয়ে সে চলে গেছে দেশের বাইরে। এমন খবরে সন্তানের জন্য চরম উৎকণ্ঠিত হয়ে দেশে এসে সন্তানকে উদ্ধারে নিকেতনে তার বাসায় ছুটে যাই। সেখানে গিয়ে জানতে পারলাম, দরজায় তালা দিয়ে অপু চাবি নিয়ে চলে গেছে। এরপর বাবা হিসেবে আমি কেমন মানসিক যাতনায় ছিলাম তা কারও বুঝতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়।

এত কিছুর পরও যদি সে এসে ক্ষমা চাইত, আমি তাকে নিয়ে সংসার শুরু করতাম। কিন্তু সেটা না করে উল্টো আমার বিরুদ্ধে বিষেদাগার শুরু করে। এই অবস্থায় ডিভোর্স ছাড়া আমার আর কোন উপায় ছিল না।

Comments

comments