ধর্ম ও জীবন

নিষিদ্ধ কাজের পাপ থেকে ক্ষমা লাভের দোয়া !!

মানুষ অনেক বিষয়ে আল্লাহ তাআলার কাছে দোয়া করে। এমন অনেক দোয়া করে যে কাজ করা বৈধ নয়। যেমন- কোনো জিনিস প্রাপ্তি লোভের জন্য দোয়া, মানুষের সঙ্গে প্রতারণার নিয়তে কোনো কাজ করার শুরুতে আল্লাহর সাহায্য চাওয়া ইত্যাদি। এ রমক কোনো অন্যায় করে ফেললে উক্ত দোয়ার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে ক্ষমা পার্থনা করা। যা তুলে ধরা হলো- উচ্চারণ: রাব্বি ইন্নি আউজুবিকা আন্ আস্আলাকা …

Read More »

মেয়েরা চুড়ি ও নাকফুল না পরলে স্বামীর আয়ু কমে যায় ? জেনে নিন ইসলাম কি বলে !!

আমাদের সমাজে অনেক বিবাহিতা মহিলাকেই শুনতে হয় যে হাতে চুড়ি না পরলে বা নাকে নাকফুল না পরলে স্বামীর আয়ু কমে যায় বা স্বামীর অমঙ্গল হয়। ঠিক যে বিশ্বাস নিয়ে বিধর্মী মহিলারা শাঁখা-সিঁদুর পরে, আজও অনেক মুসলমান মা বোন সেই একই ধরনের কুসংস্কারে বিশ্বাসী হয়ে চুড়ি-নাকফুল পরেন। কিন্তু ফিক্বাহ শাস্ত্রের নির্ভরযোগ্য কিতাবাদি অধ্যয়নে একথাই প্রমাণিত হয় যে, মেয়েরা কান ও নাক …

Read More »

যে দোয়াটি পড়লে অঢেল সম্পত্তির মালিক হতে পারেন আপনিও…!

আল্লাহ তাআলা বান্দাকে তার সুন্দর সুন্দর নামের জিকির বা আমল করার কথা বলেছেন। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদিসে আলাদা আলাদাভাবে এ নামের জিকিরের আমল ঘোষণা করেছেন। আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নামগুলোর মধ্যে (اَلْخَافِضُ) ‘আল-খাফিদু’ একটি। যার অর্থ হলো- ‘কাফির মুশরিকদের হীন ও নীচুকারী।’সংক্ষেপে এ গুণবাচক নাম (اَلْخَافِضُ) ‘আল-খাফিদু’-এর জিকিরের আমল ও ফজিলত তুলে ধরা হলো- উচ্চারণ : ‘আল-খাফিদু’ অর্থ : …

Read More »

লাইফ ইনস্যুরেন্স কতটা শরিয়াসম্মত?

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় বেসরকারি একটি টেলিভিশনের জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ। প্রশ্ন : লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানিগুলো দাবি করে যে, তারা সুদ দেয় না, সুদের কোনো কারবার নেই। আসলে এই লাইফ ইনস্যুরেন্স কতটা শরিয়াসম্মত? উত্তর : লাইফ ইনস্যুরেন্স নিয়ে বিতর্কিত …

Read More »

যে কাজ করলে হাতের নখ দিয়ে গুণাহ বের হয়ে যায়

নামাজের জন্য অযু তথা পবিত্রতা জরুরী। অযু পবিত্রতা অর্জনের উপায়। আর যদি আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে সুন্নাত তরীকায় অযু করা হয় তা অনেক বড় নেক আমল। এটি অতি সহজ আমল, যা আমরা সকলেই করি এবং দিনে একাধিকবার করি। পাঁচ ওয়াক্ত নামাযে অযুর প্রয়োজন হয়। আমরা যদি একটু খেয়াল করে মাসনূন তরীকায় এই সহজ ও প্রয়োজনীয় আমলটি সম্পাদন করি তাহলে অতি সহজে …

Read More »

২০ মিনিটে ২০ খতম আল-কুরআনের সওয়াব লাভ করার আমল । এখনই জানুন ।

নিজে জানুন আমল করুন অপরকে জানান। এতে যদি ১ থেকে হাজার মানুষ পর্যন্তও ছড়ায় আর তা শিক্ষা গ্রহন করে আপনার দ্বারা উপকার প্রাপ্তদের সকলের সওয়াব আপনার আমলনামায় দেয়া হবে ইনশা-আল্লাহ। ★ সুরা ফাতিহা ৩ বার পড়লে আল-কুরআন ২ বার খতমের সওয়াব হয়। (তফসীরে মাযহারী ১ম, পৃ ১৫) ★ সুরা ইখলাস ৩ বার পড়লে ১ খতমের সওয়াব হয়। (সহিহ বুখারী ২য়, …

Read More »

যত দূর তুমি আঙ্গুল দিয়ে ইশারা করতে পারো তত দূর পর্যন্ত সবাইকে জান্নাতে নিয়ে নিবো!

হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) একদিন হযরত ওমর (রাঃ) কে বললেন ওমর তোমার সময় হজ্বে একজন বান্দা আসবে তার নাম হবে ওয়ায়েস, তার বংশ হবে কারন্, গোত্র হবে মুরাদ রং হবে কালো এবং তার শরীলে একটা সাদা চিন্হ থাকবে। যখন সে আসবে তার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে দোয়া চেয়ে নিও, আলী তুমিও, ওমর তুমিও নিও এবং তবে এটাও জেনে রাখ ওয়ায়েস এর মতো …

Read More »

প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) যেসব খাবার পছন্দ করতেন

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) যেসব খাবার গ্রহণ করেছেন, তা ছিল সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যসম্মত ও পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ। আজকের বিজ্ঞানের গবেষণা-এষণায় বিমূর্ত হচ্ছে রাসুল (সা.)-এর খাবারগুলোর গুণাগুণ ও মানবদেহের জন্য সেগুলোর প্রয়োজনীয়তা। নিম্নে সংক্ষেপে রাসুল (সা.)-এর কিছু খাবারের আলোচনা বিধৃত হলো। পনির : হজরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত, তাবুকের যুদ্ধে রাসুল (সা.)-এর কাছে কিছু পনির উপস্থাপন করা …

Read More »

যে কারণে বকরি চরিয়েছেন নবী রাসূলগণ!

আগের যুগে মানুষের হালাল উপার্জনের একটি অন্যতম মাধ্যম ছিল বকরি চরানো। হাদীসে এসেছে, আল্লাহ তায়ালা যত নবী রাসূল পাঠিয়েছেন সকলেই বকরি চরিয়েছেন। এমনকি আমাদের প্রিয় নবীজি (সা.) সহ সকল নবী ও রাসূল বকরি চড়িয়েছেন। আগের যুগে বকরি চরানো মানুষের হালাল উপার্জনের একটি অন্যতম মাধ্যম ছিল। এ কাজের মাধ্যমে মানুষ সে সময় গরিব থেকে ধনী হত। পাশাপাশি মানুষের মনেরও একটি পরীক্ষা …

Read More »

ইসলামের দৃষ্টিতে স্বামী বিদেশে থাকলে স্ত্রীর করণীয় কি? অবশ্যই দেখুন

স্বামী বিদেশে থাকলে তার দ্বীন ও দুনিয়া বিষয়ক সকল কিছুর দায়িত্বশীলা হয় স্ত্রী।স্বামী ঘরে থাকতে যে দায়িত্ব সে পালন করে, সে ঘরে না থাকলেও অনুরূপ দায়িত্ব পালনে তৎপর থাকে।আল্লাহর রসূল (সাঃ) বলেন, “তোমাদের প্রত্যেকেই দ্বায়িত্বশীল এবং প্রত্যেককেই তার দায়িত্ব-বিষয়ে (মিয়ামতে) কৈফিয়ত করা হবে। ইমাম (রাষ্ট্রনায়ক তার রাষ্ট্রের) একজন দায়িত্বশীল, সে তার দায়িত্ব-সম্পর্কে জিজ্ঞাসিত হবে। পুরুষ তার পরিবারে দায়িত্বশীল, সে সে …

Read More »